ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যে সকল স্থানে ফোন রাখা মারাক্তক ভুল!

স্বাস্থ্য ডেস্ক
যে সকল স্থানে ফোন রাখা মারাক্তক ভুল!
সংগৃহীত : ছবি
Advertisement (Adsense)

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে রাতে ঘুমানোর আগ পর্যন্ত যে গ্যাজেটটি আমাদের সার্বক্ষণিক সঙ্গী, সেটি হচ্ছে মুঠোফোন। প্রযুক্তি নির্ভর এই যুগে মোবাইল ছাড়া আমাদের চলে না একটি মুহূর্তও। তবে মোবাইল ফোন এমনভাবে ব্যবহার করা চাই যেন সেটা শারীরিক ক্ষতির কারণ না হয়ে দাঁড়ায়। পাশাপাশি প্রিয় ফোনটিও যেন ভালো অবস্থায় দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যায় সেজন্য নির্দিষ্ট কিছু জায়গায় ফোন না রাখাই ভালো।
 
পকেট

প্যান্ট কিংবা শার্টের পকেটে মোবাইল ফোন রাখবেন না। বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরের সংস্পর্শে আসে এমন কোথাও ফোন রাখা একেবারেই উচিৎ নয়। এতে শরীরের বিভিন্ন অংশে ব্যথাসহ নানা ধরনের অসুস্থতার মুখোমুখি হতে পারেন অদূর ভবিষ্যতে। ফোন থেকে আসা র‍্যাডিয়েসন থেকে শরীরের এ ধরনের ক্ষতি হয়।  

বালিশের নিচে

অনেকে ঘুমানোর সময় বালিশের নিচে রেখে দেন সবসময়ের সঙ্গী প্রিয় মুঠোফোন। এটি একেবারেই অনুচিত। চার্জ দেওয়া অবস্থায় রাখলে ফোন যেমন গরম হয়ে যায়, তেমনি হুটহাট ভাইব্রেশনে ক্ষতি হয় ঘুমের। ফোন থেকে আসা র‍্যাডিয়েসনও শরীরের জন্য যথেষ্ট ক্ষতিকর। ঘুমের সময় আশেপাশে ফোন না রেখে তাই দূরে কোথাও রাখুন।

বাথরুম

অনেকে বাথরুমে ফোন নিয়ে যান। অনেকে বার চার্জ দেন বাথরুমে। এটি উচিৎ নয়। বাথরুমে থাকা বাষ্প ফোনের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি করতে পারে।

গাড়ির ড্যাশবক্স

ড্যাশবক্সে ফোন রাখলে অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়। সরাসরি সূর্যের আলো পড়ার কারণে বেড়ে যায় র‍্যাডিয়েসন লেভেল, যা আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

আপনি কি মোবাইল ফোন অন্তর্বাসের ভিতরে রাখেন?

ক্যালিফোর্নিয়ার ব্রেস্টলিঙ্ক নামক একটি সংস্থায় গবেষণা করে দেখা গেছে যে, স্তন ক্যান্সারের সঙ্গে মোবাইল ফোনের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। গবেষণা থেকে জানা গেছে যে, যে সমস্ত পরিবারে পূর্বে কোনও ক্যান্সারের ইতিহাস নেই বা আক্রান্তের কোনও তথ্য নেই, সেই পরিবারেও এখন ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। মূলত, চল্লিশ বছরের মধ্যে যে সকল মহিলা রয়েছেন, তাদের ক্যান্সার হওয়ার প্রবণতা সবথেকে বেশি। গবেষণা থেকে প্রমাণিত, যে সকল নারী অন্তর্বাসের ভিতরে মোবাইল ফোন রাখেন, তাদের প্রত্যেকের বুকের কোনও না কোনও স্থানে টিউমার হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল এবং এদের সকলের স্তন ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

সমুদ্রের কাছাকাছি:

বেড়াতে গেছেন উপভোগ তো করবেনই কিন্তু একটু সামলে। আপনার সব সময়ের সঙ্গী মোবাইল ফোনের কথা ভুলবেন না। ভুলেও সমুদ্রের কাছাকাছি ফোন নিয়ে যাবেন না। প্রয়োজনে হোটলেই রেখে আসুন। কারণ, আপনার ত্বকের মতোই ফোনও পুড়ে যায়।

আগুনের কাছে রাখবেন না:

আগুনের কাছাকাছি রাখলে ফোন খারাপ হয়ে যেতে পারে। গরমের জন্যই এটা হয়। রান্না করার সময়টা ফোন নিজের থেকে একটু দূরে রাখুন।

 

আরও পড়ুন

Advertisement (Adsense)